সচ্ছল জীবনযাপনের জন্য সরকারের তরফ থেকে নানা সুযোগ-সুবিধা বাড়ানোর পরও যারা অতি লোভী হয়ে দুর্নীতির সাথে জড়িত হবে তাদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেয়ার হুঁশিয়ারি দিয়েছেন অভ্যন্তরীণ সম্পদ বিভাগের জ্যেষ্ঠ সচিব ও জাতীয় রাজস্ব বোর্ডের (এনবিআর) নতুন চেয়ারম্যান আবু হেনা মো. রহমাতুল মুনিম।

বৃহস্পতিবার (২৩ জানুয়ারি) রাজধানীর সেগুনবাগিচায় এনবিআরের সম্মেলন কক্ষে আন্তর্জাতিক কাস্টমস দিবস-২০২০ উপলক্ষে আয়োজিত এক সংবাদ সম্মেলন তিনি এ হুঁশিয়ারি দেন।

রহমাতুল মুনিম বলেন, জিরো টলারেন্স একটা ফাঁকা বুলি। এটা কখনোই বাস্তবায়ন করা যায় না। বর্তমান সরকার চাকরিজীবীদের বেতন-ভাতা বাড়ানোসহ অনেক সুযোগ-সুবিধা দিয়েছে। ফলে দুর্নীতি না করেও সচ্ছলভাবে জীবনযাপন করা সম্ভব। তারপরও যারা অতি লোভী হয়ে দুর্নীতির সাথে সম্পৃক্ত হবে, তাদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেয়া হবে।

রাজস্ব ঘাটতি পূরণের প্রতিশ্রুতি দিয়ে এনবিআরের নতুন চেয়ারম্যান বলেন, রাজস্ব ঘাটতি পূরণে গুরুত্ব দেয়া হবে। এ ক্ষেত্রে করের আওতা বাড়াতে কাজ করা হবে। স্বচ্ছতা, জবাবদিহিতা ও সততা আনার পাশাপাশি বাস্তবায়নযোগ্য নতুন নতুন পদক্ষেপ নেয়া হবে।

কাস্টমস দিবসের আয়োজন সম্পর্কে তিনি জানান, বিশ্বের অন্যান্য দেশের মতো বাংলাদেশেও ২৬ জনুয়ারি আন্তর্জাতিক কাস্টমস দিবস পালন করা হবে। টেকসই উন্নয়ন লক্ষ্যমাত্রা (এসডিজি) অর্জনের ক্ষেত্রে কাস্টমসের ভূমিকা ও গুরুত্বকে বিশ্ববাসীর সামনে তুলে ধরাই এবারের প্রতিপাদ্য।

আন্তর্জাতিক কাস্টমস দিবস উপলক্ষে ২৬ জানুয়ারি সকাল সাড়ে ৭টায় রাজস্ব ভবন থেকে বর্ণাঢ্য র্যালি বের করা হবে। এছাড়া বিকেল ৫টায় ইন্টারন্যাশনাল কনভেনশন সিটি বসুন্ধরায় (আইসিসিবি) সেমিনারের আয়োজন করবে এনবিআর। দিবসটি উপলক্ষে মতবিনিময় ও আলোচনা, টেলিভিশন টকশো, দৈনিক পত্রিকায় ক্রোড়পত্র প্রকাশ, পোস্টার, ব্যানার টানানোসহ নানা ধরনের উদ্যোগ নেয়া হয়েছে বলে জানান এনবিআর চেয়ারম্যান।

Leave a Reply

Your email address will not be published.